সম্পর্ক

তুলনামূলক পদ্ধতি

সপ্তম হাউস এবং এর লর্ডের দিকগুলি

ম্যালফিক গ্রহের দিকগুলি (সূর্য, মঙ্গল, শনি, রাহু, এবং কেতু এবং ষষ্ঠ, অষ্টম এবং দ্বাদশ শ্রেণীর প্রভু) সপ্তম ঘর বা এর শাসকের বিচ্ছিন্নতা বা বিবাহ বিচ্ছেদের কারণ হয়ে থাকে। সূর্য আমাদেরকে ব্যক্তিকামী বা প্রভাবশালী করে তুলবে। শনি আমাদেরকে খুব বিপরীত, নির্জন বা ভীত করে তুলবে। মঙ্গল গ্রহের দিকটি দ্বন্দ্ব বা দুঃখের কারণ হতে পারে এবং এটি কুজা দোষের একটি কারণ।

রাহু আমাদের অবাস্তব প্রত্যাশা এবং প্রেরণার বিভ্রান্তি দেবে। কেতু আমাদেরকে ডিফেন্সিভ এবং কন্ট্রাক্ট করে তুলবে। দ্বাদশ হুজুর আমাদের সম্পর্কের অবহেলা করতে বাধ্য করবেন। অষ্টম বা ষষ্ঠ বাড়ির কর্তা এখানে কেবল সম্পর্কের জন্য নয়, স্বাস্থ্যের জন্যও কঠিন হতে পারে

অন্যদিকে, উপকারের দিকগুলি সপ্তম ঘর এবং এর প্রভাবগুলিকে বাড়িয়ে তোলে। সপ্তম বা এর কর্ণধার সেরা সেরা একটি উপকারী বৃহস্পতির দিক। এটি সম্পর্কের সুখের গ্যারান্টি দিতে পারে। এটি অংশীদার বোঝার এবং সম্পর্কের ক্ষেত্রে ভাল ইচ্ছা তৈরি করে। এটি বিশেষত শক্তিশালী যদি বৃহস্পতিটি সপ্তমীরও শাসক হয়। চাঁদ অদৃশ্য না হওয়া এবং দুর্দশাগ্রস্থ না হলে চাঁদের দিকটি সাধারণত ভাল। চাঁদ যোগাযোগ এবং অনুভূতির সংবেদনশীলতা, একটি সাধারণ উন্মুক্ততা এবং ভাগ করে নেওয়ার ক্ষমতা দেয়।

সপ্তম বাড়ি

সপ্তমীর দিকে শুক্রের দিকটি স্নেহ দেওয়ার জন্য এবং স্বতন্ত্র আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য সহায়ক। বুধের দিকটি যোগাযোগ বাড়ায় তবে স্থায়ী পরিচিতির গ্যারান্টি দেয় না।

সপ্তম থেকে সপ্তমীর প্রভুর দিকটি সাধারণত সহায়ক হয়, যদি না এটি ম্যালিফিক থাকে। তবে এটি সর্বদা ভাল হয় না যদি এটি প্রথম ঘর থেকে আসে, যা সপ্তম প্রভুকে নিজের ক্ষেত্রের (প্রথম বাড়ির) সীমাতে সীমাবদ্ধ দেখায়।